বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি আদায় প্রসঙ্গে মাউশি বিজ্ঞপ্তি

দেশের বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি আদায় প্রসঙ্গে মাউশি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। ১৮ নভেম্বর অধিদপ্তরের ওয়েবসাইটে কোভিড-১৯ এর সময় শিক্ষার্থীদের বেতন আদায় প্রসঙ্গে এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।

মাউশি মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মাে. গােলাম ফারুক স্বাক্ষরিত বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি প্রসঙ্গে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়-

কোভিড-১৯ এর কারণে গত ১৮.০৩.২০২০ খ্রি. থেকে দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে।

তবে এরই মধ্যে “সংসদ বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত ক্লাসের পাশাপাশি বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কার্যকরভাবে অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা করলেও, কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তা ভালােভাবে করতে পারেনি।

একইভাবে বেশির ভাগ শিক্ষার্থী এসব অনলাইন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পেরেছে, কিছু শিক্ষার্থী পারেনি।

যাই হােক, সার্বিক বিবেচনায় আমাদের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলাে হঠাৎ করে উদ্ভূত এই পরিস্থিতির সঙ্গে নিজেদের খাপ খাইয়ে নিয়ে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন অব্যাহত রাখার যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবীদার।

তবে শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি নিয়ে কিছু কিছু প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে অভিভাবকদের মতদ্বৈততা পরিলক্ষিত হচ্ছে।

কিছু অভিভাবক বলছেন একদিকে স্কুল বন্ধ ছিল আর অন্যদিকে এই করােনা পীড়িত সময়ে তারা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হয়েছেন, অতএব তাদের পক্ষে টিউশন ফি প্রদান করা সম্ভব নয়।

অন্যদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলাে বলছে তারা শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন অব্যাহত রাখার যথাসাধ্য চেষ্টা করেছে;

উপরন্তু, প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন ও স্কুল রক্ষণাবেক্ষণ খাতে প্রতি মাসে তাদের একটা নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতেই হয়।

এমতাবস্থায়, আমাদেরকে যেমন অভিভাবকদের অসুবিধার কথা ভাবতে হবে অন্যদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলাে যেন বন্ধ বা অকার্যকর কিংবা বেতন না পেয়ে শিক্ষক-কর্মচারীদের জীবন যেন চরম সংকটে পতিত না হয় সেটাও খেয়াল রাখতে হবে।

পর্বাপর বিষয়গুলাে বিবেচনা করে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের আওতাধীন বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ (এম.পি.ও.ভুক্ত ও এম.পি.ও বিহীন) শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টিউশন ফি গ্রহণ করবে কিন্তু

এ্যাসাইনমেন্ট, টিফিন, পুন:ভর্তি, গ্রন্থাগার, বিজ্ঞানাগার, ম্যাগাজিন ও উন্নয়ন বাবদ কোনাে ফি গ্রহণ করবে না বা করা হলে তা ফেরত দেবে অথবা তা টিউশন ফি’র সঙ্গে সমন্বয় করবে।

এছাড়াও অন্য কোনাে ফি যদি অব্যয়িত থাকে তা একইভাবে ফেরত দেবে বা টিউশন ফি’র সঙ্গে সমন্বয় করবে।

তবে যদি কোন অভিভাবক চরম আর্থিক সংকটে পতিত হন, তাহলে তার সন্তানের টিউশন ফি’র বিষয়টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ বিশেষ বিবেচনায় নেবেন।

এখানে উল্লেখ্য, কোনাে শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন যেন কোনাে কারণে ব্যাহত না হয় সে বিষয়টি সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট সকলকে যত্নশীল হতে হবে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের শুরুতে যদি কোভিড-১৯ পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হয় তাহলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলাে শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এমন কোনাে ফি— যেমন টিফিন, পুনঃভর্তি, গ্রন্থাগার, বিজ্ঞানাগার, ম্যাগাজিন, উন্নয়ন গ্রহণ করবে না যা ঐ নির্দিষ্ট খাতে শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যয় করতে পারবে না।

তবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পুনরায় পূর্বের ন্যায় সকল ধরণের যৌক্তিক ফি গ্রহণ করা যাবে।

বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি আদায় প্রসঙ্গে মাউশি বিজ্ঞপ্তি ডাউনলোড করুন;

ডাউনলোড করুন

আপনার জন্য আরও কিছু বিজ্ঞপ্তি:

প্রতি সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট সবার আগে পেতে বাংলা নোটিশ ডট কম এর ফেসবুক পেইজ লাইক ও ফলো করে রাখুন এবং ফেসবুক পেইজ Like ও Follow করে রাখুন;

ইউটিউবে শিক্ষা সংক্রান্ত তথ্য পেতে Bangla Notice ইউটিউব চ্যানেল Subscribe করে রাখুন।

দেশের নামকরা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা এবং মেধাবী শিক্ষার্থীরা তাদের অ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত বিভিন্ন আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করে নিচ্ছে বাংলা নোটিশ এর ফেসবুক গ্রুপে; তুমিও যোগ দাও > গ্রুপ লিংক

One thought on “বেসরকারি মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিউশন ফি আদায় প্রসঙ্গে মাউশি বিজ্ঞপ্তি

  1. Welcome. I am a Head teacher. I regularly visit Banglanotice.com.lts really amazing and serves fresh news and views effective with teacher & students simultaneously. It also meets the need of guardians as well. I am a subscriber. I wish to have the daily copy through email. That obviously will be the best publication of this online newspaperl.
    Thanking
    Shawkat Hossain Chy
    Index; 263058
    Coxsbazar

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *