বন্ধের ভিতরে ক্লাস পরিচালনার নির্দেশ মাউশির

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে বাংলাদেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এইদিকে করোনাভাইরাস এর পরিস্থিতি বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশের পরিস্থিতিও খারাপের দিকে যাচ্ছে।

বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে দেশের সকল স্তরের মানুষ। এদিকে শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রম ও ব্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে চরমভাবে। প্রাথমিক থেকে মাধ্যমিক মাধ্যমিক থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল স্তরের পরীক্ষা এবং শ্রেণী কার্যক্রম বন্ধ আছে।

শিক্ষার্থীদের পাঠদান অব্যাহত রাখতে সরকারের পক্ষ থেকে সংসদ টিভি চ্যানেলে প্রাথমিক এবং মাধ্যমিকের শ্রেণী কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে।

প্রাথমিক মাধ্যমিক শিক্ষার্থীদের জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করা হলেও উচ্চমাধ্যমিকে শিক্ষার্থীদের জন্য কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

এই নিয়ে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের মধ্যে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা থাকলে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর কর্তৃক 11 এপ্রিল একটি নির্দেশনা জারি করা হয়।

নির্দেশনায় বলা হয়-

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাব কালীন সংক্রমণ রোধে বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে দশম শ্রেণী পর্যন্ত তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর দূর শিক্ষণ পদ্ধতি চালু করেছে। এর পাশাপাশি কয়েকটি কলেজের অধ্যক্ষ মহোদয়ের নিজস্ব উদ্যোগে অনলাইন ক্লাসের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছে এবং উপকৃত হচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে এর কোন বিকল্প নেই।

এমতাবস্থায় তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদের নিজ নিজ কলেজের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য অনুরোধ করা হলো।

উপরোক্ত চিঠিতে একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণি যুক্ত উচ্চমাধ্যমিক কলেজসমূহের অধ্যক্ষদের তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর ক্লাস পরিচালনার নির্দেশনা প্রদান করেন মাউশি।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত সকল তথ্য পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজে এবং ফেসবুক গ্রুপে যুক্ত হন।

শিক্ষাসংক্রান্ত বিভিন্ন সলিউশন পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে যুক্ত হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *